খেলাধুলাঃ শিশুর সঠিক বিকাশের চাবিকাঠি


ভাষা বা গণিতের প্রাথমিক শিক্ষা বাচ্চাদের জন্য কত গুরুত্বপূর্ণ তা আমরা সবাই বুঝি, তবে এসবের পাশাপাশি ওদের সঠিকভাবে বেড়ে ওঠার জন্য খেলাধুলা করাও সমান প্রয়োজনীয়। 

উপরের ক্লাসে ওঠার সাথে সাথে বাচ্চাদের পড়ার চাপ বাড়তে থাকে। বেশিরভাগ সময়ই দেখা যায় এর ফলে তাদের খেলার সময় কমতে থাকে। অথচ, এতে হিতে বিপরীত হবার সম্ভাবনাই বেশি। 

গবেষণায় দেখা গেছে বাচ্চাদের শারীরিক বিকাশের জন্য খেলাধুলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সত্যি কথা বলতে কি- খেলাধুলার মাধ্যমেই শিশুর শারীরিক কার্যক্ষমতা বেড়ে ওঠে এবং তারা একটি সুস্থ ও কর্মক্ষম জীবনে অভ্যস্ত হয়ে ওঠে। একই সাথে খেলাধুলা শৈশব-কালীন স্থূলতা, ডায়াবেটিস এবং অন্যান্য নানা অসুখের হাত থেকে তাদের রক্ষা করে। 

শুধু খেলাধুলা নয় ঘরের মধ্যে বা বাইরে ছোটাছুটিও শিশুদের জন্য উপকারী। এটা তাদের ক্লাসে বা পড়ায় মনোযোগী হতে সাহায্য করে। ফিনল্যান্ডের প্রাথমিক স্কুল-গুলোয় প্রতিদিন ক্লাসের ফাঁকে ফাঁকে ‘আউটডোর একটিভিটি’র রুটিন রয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিনিশ ছাত্র-ছাত্রীদের ভাল ফলাফলের পেছনে এটাও একটি অন্যতম কারণ। 

স্ট্রাকচার্‌ড প্লে বা গঠনমূলক খেলাধুলা কি? এর প্রয়োজনীয়তা আছে কেন?
কোন পূর্ণবয়স্কের উপস্থিতিতে বিভিন্ন গেমস এবং ফিজিক্যাল এক্টিভিটি করাকেই বলা হয় স্ট্রাকচার্‌ড প্লে। এরকম না হলে খেলার মধ্যে মনোমালিন্য বা ঝগড়া-ঝাঁটি হতে পারে বা কেউ কেউ অংশগ্রহণ না করে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখার চেষ্টা করতে পারে। 

স্ট্রাকচার্‌ড প্লে বাচ্চাদের অনেক কিছু শেখায়- যেমন কীভাবে যে কোন সমস্যার সমাধান করতে হবে, আত্মনিয়ন্ত্রণ, শৃঙ্খলা, নেতৃত্ব গুণাবলী ইত্যাদি। ফলে, শিশুরা ইতিবাচক এবং সুস্থ পরিবেশে বড় হবার সুযোগ পায়। 

গবেষণা কি বলেঃ
•    ক্লাস কিংবা শারীরিক শিক্ষার পর রিসেস/বিরতি দেয়া উচিত। এতে করে শিশুদের কার্যক্ষমতা বেড়ে যায়। 
•    শহুরের বড় স্কুলের শিশুরা অন্যদের তুলনায় প্রতি সপ্তাহে অনেক কম বিরতি পায়।
•    যেসব স্কুলে ৫০ ভাগের বেশি সংখ্যালঘু এবং যাদের পিতামাতার আয় অনেক কম তারা খেলাধুলার অনেক কম সময় পায়। মাঝে মাঝে এমনও যে হয় তারা কোন সময়ই পায় না!
•     প্রয়োজনীয় এবং দক্ষ অফিস স্টাফের অভাবে অনেক স্কুল বাচ্চাদের ঠিকমতন খেলার সময় দিতে পারে না। পর্যবেক্ষণের অভাবে সেসব স্কুল রিসেস বা বিরতি দিতে পারে না।
•    স্ট্রাকচার্‌ড প্লে’র কারণে খেলার সুস্থ পরিবেশ বজায় থাকে। বাচ্চাদের মধ্যে কোন অসুস্থ প্রতিযোগিতা তৈরি হয় না। বরং তারা একে অন্যকে সহযোগিতা করার শিক্ষা পায়।
•    স্ট্রাকচার্‌ড প্লে’র ক্ষেত্রে বাচ্চারা নিজেদেরকে অধিকতর নিরাপদ মনে করে এবং খেলাধুলা বা শারীরিক কার্যক্রমে অংশ নিয়ে বেশি আনন্দ পায়। তাদের অংশগ্রহণের হারও এক্ষেত্রে বেশি থাকে। 
•    ক্লাসে পড়াশুনার মান বেড়ে যায়।
•    খরচ একটি বড় অন্তরায়, বেশিরভাগ স্কুলের বাজেটে স্ট্রাকচার্‌ড প্লে’র জন্য বরাদ্দ থাকে না। 

 

স্ট্রাকচার্‌ড প্লে কীভাবে বাড়ানো যেতে পারেঃ
অভিভাবক, শিক্ষক এবং স্কুল কর্তৃপক্ষ চাইলে নানাভাবে এটি করা সম্ভব। সর্বপ্রথম এর প্রয়োজনীয়তা সবাইকে উপলব্ধি করতে হবে এবং বাচ্চাদের জন্য অত্যাবশ্যকীয় হিসেবে চিহ্নিত করতে হবে। রিসেস/বিরতির পেছনে বাড়তি অর্থব্যয় করতে হলেও এর গুরুত্ব অসীম। ছেলেমেয়েদের ক্লাসে অধিকতর মনোযোগী করতে এর ব্যাপক প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। যেসব বাচ্চারা স্ট্রাকচার্‌ড প্লে পছন্দ করে তারা ক্লাসে ঝামেলা করা না এবং ক্লাসরুমে শিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকে।

প্লে গ্রাউন্ডে অবশ্যই পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষক বা অফিস স্টাফের উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে। এতে করে রিসেস থেকে সর্বোচ্চ ইতিবাচক ফল পাওয়া যাবে। 

পরিশেষে, বাচ্চাদের খেলার পর্যাপ্ত সময় দিন। পড়ার দোহাই দিয়ে তাদের খেলার সময় কমিয়ে দেবেন না। কেননা, খেলাধুলা তাদের জন্য শুধু বিনোদনই নয় বরং শারীরিক ও মানসিকভাবে বেড়ে ওঠার জন্য দারুণ সহায়ক। 

Designed & Developed by Exponent Solution Limited